প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তি’র প্রতিবাদে জেলা আওয়ামীলীগের পৃথক বিক্ষোভ মিছিল

স্টাফ রিপোর্টার::
আওয়ামীলীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক কতৃৃক কটুক্তির ও হত্যার হুমকির প্রতিবাদে সুনামগঞ্জ জেলা আওয়োমীলীগের বিবদমান দুটি গ্রুপ আলাদা আলাদাভাবে শহরে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার দুপুর ১২টায় সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ নুরুল হুদা মুকুটের নেতৃত্বে শহরের রমিজ বিপনীস্থ জেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে নেতাকর্মীরা জড়ো হয়ে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহরের বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ শেষে কার্যালয়ের সামনে এসে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ নুরুল হুদা মুকুটের সভাপতিত্বে এ সময় বক্তব্য রাখেন,সহ সভাপতিমো. আবুল কাশেম,যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও ছাতক পৌরসভার মেয়র মো. আবুল কালাম,সাংগঠনিক সম্পাদক শংকর চন্দ্র দাস,জুনেদ আহমদ,কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ও তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল,সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী আবুল কালাম,জেলা আওয়ামীলীগের মানব সম্পদ বিষযক সম্পাদক সীতেশ তালুকদার মঞ্জু,শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এড. আজাদুল ইসলাম রতন,জাহাঙ্গীর চৌধুরী,তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলেিগর সাধারন সম্পাদক অমল কান্তি কর,এড. দেবাংশু শেখর দাস, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারন সম্পাদক জুবের আহমদ অপু,সাংগঠনিক সম্পাদক এড. বুরহান উদ্দিন,মৎস্যজীবিলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য মো. ফজলুল রহক,জেলা যুবলীগের সিনিয়র সদস্য নুরুল ইসলাম বজলু,সবুজ কান্তি দাস,জেলা কৃষকলীগের নেতা যথীন্দ্র মোহন তালুকদার,সদর যুবলীগ নেতা এহসান আহমদ উজ্জল,সহ সভাপতি কাউসার আহমদ,পিন্টু বণিক,অপু মিয়া,সাংগঠনিক সম্পাদক জেবুল মিয়া,যুবলীগ নেতা মো. পাভেল আহমদ, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি দিপংঙ্কর কান্তি দে,সহ সভাপতি অমিয় মৈত্র,লিকন আহমদ,সৈয়দ আপন,সহ সভাপতি কাউসার আহমদ,রাজন আহমদ,জেরিন আহমদ,যুগ্ম সাধারন সম্পাদক হারুণ রশিদ,সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সল আহমদ,জেলা মৎস্যজীবিলীগের আহবায়ক জিলান আহমেদ,সদস্য সচিব তারেক আহমদ,সদর স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক মখলিছ মিয়া,পৌর যুবলীগের সদস্য হাসানুজ্জামান ইস্পাহানি, শফিকুল ইসলাম ফরহাদ প্রমুখ। অপরদিকে সাবেক সংসদ সদস্য ও সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ মতিউর রহমানের নেতৃত্বে একটি মিছিল শহরের উকিলপাড়াস্থ কার্যালয় থেকে বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে ঐতিহ্যবাহি যাদুঘরের সামনে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ব্যরিস্টার এম এনামুল কবির ইমন,সহ সভাপতি নোমান বখত পলিন,খায়রুল কবির রুমেন,যুগ্ম সাধারন সম্পাদক এড. নান্টু রায়,এড. হায়দার চৌধুরী লিটন,আওয়ামীলীগ নেতা সুবীর তালুকদার বাপ্টু, রেজাউল করিম নিক্কু,সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুর রহমান,সদর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোবারক হোসেন,শিক্ষা ও প্রকাশনা সম্পাদক গোলাম সাবেরীন সাবু, জেলা কৃষকলীগের আহবায়ক আব্দুল কাদির শান্তি মিয়া,সদস্য সচিব সাংবাদিক বিন্দু তালুকদার,যুগ্ম আহবায়ক শাহ আলম শেরুল,জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি মো. সেলিম আহমদ প্রমুখ। নেতৃবৃন্দরা বলেছেন,জাতির পিতার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দীর্ঘ ১২ বছরের অধিক সময়ে দেশ পরিচালনায় বিশে^ বাংলদেশ একটি উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হয়েছে। পদ্মাসেতু নিয়ে দেশী ও বিদেশীরা আন্তর্জাতিক য়ড়যন্ত্রেরর পর ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতুর কাজ সম্পন্ন করায় বিএনপি জামায়াতের গাত্রদাহ সৃষ্টি হয়েছে। তাই এই স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াত শিবিরের পৃষ্টপোষক বিএনপি ও ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক কর্তৃক ৭৫ এর হাতিয়ার গর্জে উঠুক আরেকবার এমন শ্লোগান ও প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তি তাকে হত্যার হুমকি দিয়ে গোলা পানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা করছেন। অবিলম্বে এমন অশালীন বক্তব্য প্রত্যাহার করে জাতির নিকট নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানান। অন্যতায় মুজিব সৈনিকরা তাদের রাজপথে প্রতিহতের ঘোষনা দেন।