বাউল গানের মাধ্যমে বর্হিবিশে^ জেলার সুনাম বৃদ্ধি করেছেন ক্ষণজন্মা বাউলেরা …….নুরুল হুদা মুকুট


স্টাফ রিপোর্টার::
জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ নুরুল হুদা মুকুট বলেন,সংস্কৃতির রাজধানী হিসেবে জেলায় অনেক নামকরা আউল বাউল ও মরমী সাধকরা জন্মগ্রহন করে তাদের গানের মাধ্যমে দেশ বিদেশে সুনামগঞ্জকে তুলে ধরে জেলার সুনাম বৃদ্ধি করেছেন। শিল্পীরা সুনামগঞ্জের মানুষের প্রাণ, গান মানুষকে সমৃদ্ধ করেছে,গান হচ্ছে মনের খোরাক বেচেঁ থাকার প্রেরণা। তিনি বলেন,বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার কন্যা শেখ হাসিনা তার জন্মস্থান গোপালগঞ্জকে স্মরণ করলেই তিনি জেলাবাসীকে মনে করেন। তাই এই বাউলদের কল্যাণে তাদের আর্থিকভাবে সহযোগিতা করতে বর্তমান সরকার এবং আমরা জনপ্রতিনিধি হিসেবে জেলা পরিষদের মাধ্যমে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার ঘোষনা দেন। তিনি সোমবার বিকেলে জেলা পরিষদের অর্থায়নে জেলার ২২জনকে বাউল শিল্পীর প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল হুদা মুকুট এসব কথা বলেন। জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেনের সঞ্চালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সহকারী প্রকৌশলী ইমামুল হাসান, প্রধান সহকারী আব্দুল মতিন, হিসাব রক্ষক বিমলেন্দু রায়, তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বাবু অমল কান্তি কর, লোক গবেষক সুমন কুমার দাস,আব্দুল করিমের ছেলে শাহ নুর জালাম, বাউল আলম শাহ, বাউল মকরম আলী শাহ, মকদ্দছ আলী, বাউল চন্দন মিয়া, বাউল তছকির মিয়াসহ অসংখ্য বাউল শিল্পীরা উপস্থিত ছিলেন।