জগন্নাথপুরে নাগেরখাল-সুপারখাল জলমহাল নিয়ে চরম উত্তেজনা


জগন্নাথপুর প্রতিনিধি::
জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের নাগেরখাল সুপারখাল জলমহাল নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। এ ঘটনায় এক যুবক আহত হয়েছেন। তাকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের নাগেরখাল ও সুপারখাল জলমহালটি যুগ যুগ ধরে মজিদপুর ও নাদামপুর গ্রামবাসী ভোগব্যবহার করে আসছেন। জলমহালের আয় দিয়ে দুই গ্রামবাসী বিভিন্ন উন্নয়নমুলক কাজ করে আসছেন। এবার উপজেলা প্রশাসনের তত্বাবধানে নাদামপুর গ্রামের ছালিম মিয়াকে প্রতিনিধি নিয়োগ করে জলমহালের রক্ষণাবেক্ষণের উদ্যোগ নিলে নাদামপুর গ্রামের প্রবাসী সিরাজ মিয়া এতে বাধা বিপত্তি চালান। গত ১০ অক্টোবর সিরাজ মিয়া তার আত্বীয় স্বজনদের নিয়ে লাইসেন্সকৃত বন্দুক নিয়ে জলাশয়ের কাজে বাধা দেন এ ঘটনায় ছালিম মিয়া বাদী হয়ে জগন্নাথপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এদিকে গত মঙ্গলবার রাতে দুবৃত্তের হামলায় সিরাজ মিয়া পক্ষের দিলু বক্স (৩৫) নামে এক যুবক অজ্ঞাত নামা দুবৃত্তরা হামলার শিকার হলে হামলার শিকার পরিবারের লোকজন বিষয়টি জলমহাল সংক্রান্ত বিষয়ে হামলা হয়েছে দাবি করে জগন্নাথপুর থানায় প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিয়েছেন বলে জানা গেছে। অপর দিকে দুই গ্রামবাসী ঐক্যবদ্বভাবে জলমহাল তাদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। এবিষয়ে জানতে জগন্নাথপুর নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মেহেদী হাসান বলেন, জলাশয়টি সরকারি সম্পত্তি। আমরা আইনমোতাবেক এর রক্ষনা বেক্ষন করব কেউ বেআইনিভাবে এতে বাধা নিষেধ প্রদান করতে পারবে না। জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনজার্চ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে আমরা তৎপর রয়েছি।