নারী ভিক্ষুককে রাতভর গণধর্ষণ,আটক ২


তাহিরপুর প্রতিনিধি::
তাহিরপুরে ঘুমন্ত শিশুকে পাশে রেখে এক বিধবা নারী ভিক্ষুককে রাতভর গনধর্ষনের অভিযুক্ত ধর্ষনকারী দু-জনকে আটক করেছে তাহিরপুর থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলো,উপজেলা বাদাঘাট ইউনিয়ন মোল্লাপাড়া গ্রামের আশরাফ উদ্দিনের ছেলে আজিজুল ইসলাম(৪০)ওরফে কালা মিয়া ও রফিকুল ইসলামের ছেলে সাইফুল ইসলাম(২৭)। গত বৃহ¯পতিবার ভোর রাত উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের কামড়াবন্দ গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। এঘটনায় শনিবার বিকেলে তাহিরপুর থানা পুলিশকে গনধর্ষণের বিষয়ে ভিকিটিম লিখিত ভাবে অভিযোগ দায়ের করার পর রাতে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তদের আটক রবিবার সকালে আদালত আর ভিক্টিমকে শারীরিক পরিক্ষা জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তাহিরপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আবদুল লতিফ তরফদার। বিধবা নারী ভিক্ষুককে ধর্ষন করা ঘটনায় এলাকায় আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠেছে। সেই সাথে অভিযুক্তদের কঠোর শাস্থির দাবী জানিয়েছেন ভিক্টিমের পরিবার ও সচেতন মহল। ভিক্টিম ও মামলা সুত্রে জানাযায়,উপজেলার দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়নের কাউকান্দি চতুর্ভুজ গ্রামের বিধবা নারী (৩৫) ছয় বছর বয়সি শিশুসন্তানকে নিয়ে ভিক্ষা করে সংসার চালান। বর্ষা মৌসুম হওয়ায় গ্রামের বাড়িতে যাতায়াতে ঝুঁকির কারণে উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের কামড়াবন্দ গ্রামে বাসা ভাড়া নেন তিনি। সেখানে বৃহ¯পতিবার ভোর রাত ৩টা সময় একেই ইউনিয়নের মোল্লাপাড়া গ্রামের ঐ দুই ব্যক্তি বাসায় ঢুকে ওই নারীকে ধর্ষণ করে। ঘটনার পরপরই প্রতিবেশী ও এলাকার মুরব্বিদের বিষয়টি জানানোর পর থানায় অভিযোগ না করার জন্য ভিকটিমকে ভয় দেখায় অভিযুক্তরা। এরপর সকল ভয় উপেক্ষা করে মামলা দায়ের করে মামলা নং ৪,তারিখ ০৪,০৯,২০২১ইং।