অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন বন্ধে প্রশাসনের মতবিনিময় সভা


স্টাফ রিপোর্টার::
সুনামগঞ্জে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন ও বিপণন এবং নদী,খালের তীরবর্তী এলাকায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ পকল্পে সচেতনতা বৃদ্ধি শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকালে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সম্মেলনকক্ষে মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ। এসময় বক্তব্য রাখেন, পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান (বিপিএম), পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি), সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি শামসুন্নাহার বেগম শাহানা রব্বানী, ২৮ ব্যাটালিয়ন সুনামগঞ্জের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মাকসুদুর রহমান, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের সুনামগঞ্জ জেলা সভাপতি এ্যাড.শফিকুল ইসলাম, সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও দৈনিক সুনামকন্ঠ পত্রিকার স¤পাদক ও প্রকাশক বিজন সেন রায়, সুনামগঞ্জের খবর পত্রিকার স¤পাদক ও প্রকাশক পঙ্কজ কান্তিদে, দৈনিক হাওরাঞ্চল পত্রিকার স¤পাদক ও প্রকাশক মাহতাব উদ্দিন তালুকদার, সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ স¤পাদক আমিনুল হক, রিপোর্টার ইউনিটির সভাপ্রতি লতিফুর রহমান রাজু, সময় টিভির জেলা প্রতিনিধি হিমাদ্রী শেখর ভদ্র, মোহনা টিভির প্রতিনিধি কুলেন্দু শেখর দাস, সাংবাদিক মিজানুর রহমান মিজান, শাহজাহান চৌধুরী, মাছরাঙা টিভির প্রতিনিধি এমরানুল হক চৌধুরী, সাংবাদিক হাবিব সরওয়ার আজাদ প্রমুখ। সুনামগঞ্জ জেলার ১১টি উপজেলার মধ্যে বিশ্বম্ভপুর ও শাল্লা উপজেলা বাদে বাকি ৯টি উপজেলার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও তাহিরপুর উপজেলার যাদুকাটা নদী ও নদী,খাল তীরবর্তীতে অবৈধ ভাবে স্থাপনা অপসারণ, বালু স্তুপীকরণ ও অবৈধভাবে ড্রেজারের মাধ্যমে বালু খনন বন্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত করে সরকারী স¤পত্তি উদ্ধার ও পরিবেশ বিপর্যয় থেকে রক্ষায় যথাযথ ভ‚মিকা নিতে মতামত ব্যক্ত করেন। সেই সাথে পুনরায় অবৈধ স্থাপনা যাতে নির্মাণ না করা হয় সেদিকে কঠোর নজরদারী রাখতে অনুরোধ জানানো হয়। সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ এসময় সুনামগঞ্জ শহরের বুক চিঁড়ে যাওয়া কামারখাল দ্রæত উদ্ধারের জোর দাবী জানান। সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ বলেন, সুনামগঞ্জের ধোপাজান নদী (বালু মহাল) সহ জেলার ৭ টি উপ-নদীতে বাল্কহেটসহ কোন নৌযান প্রবেশ করতে পারবেনা। বিশেষ প্রয়োজনে প্রবেশ করলে ফিটনেস ও রোডপার্মিট থাকতে হবে। স্থানীয় বালু মহালগুলো বহিরাগত শ্রমিক প্রবেশ করতে না পারে সেজন্যে জনসচেতনতা সৃষ্টির করতে হবে।