জগন্নাথপুরে বৃদ্ধকে মারপিটের ঘটনায় পাঁচ বখাটে কারাগারে


স্টাফ রিপোর্টার::
জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের আলীগঞ্জ বাজারের স্বামী পরিত্যক্তাকে অপহরণ, ধর্ষণ ও তার বাবা আনোয়ার মিয়া (৬৫) কে বেদম মারপিটের ঘটনায় আটক পাঁচ আসামীকে বুধবার বিকাল সাড়ে তিনটায় সুনামগঞ্জ জগন্নাথপুর বিচারিক আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। জগন্নাথপুর জোন এর বিচারক শুভজিৎ পালের আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালত তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশের সুনামগঞ্জের আদালত পরিদর্শক মো. সেলিম নেওয়াজ। কারাগারে সোপর্দকৃতরা হলেন, গোতগাঁও গ্রামের লিটন মিয়া, আক্কাই মিয়া, দিলাক মিয়া, নোয়াগাঁও গ্রামের কাজল মিয়া ও খাঁনপুর গ্রামের আলম হোসেন। প্রধান আসামী শামীম আহমদ গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এদিকে বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান। শামীম আহমদকে দ্রæত গ্রেফতার করতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। আটককৃত চারজনসহ পলাতক শামীম আহমদ প্রধান আসামী করে মঙ্গলবার রাতে জগন্নাথপুর থানায় অপহরণ, ধর্ষণ ও বাবাকে মারপিটের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন নির্যাতিতা নারী। প্রসঙ্গত, গত সোমবার রাত ১ টায় গোতগাঁও গ্রামের ইয়াবা ব্যবসায়ী শামীম আহমদসহ কয়েক বখাটে আলীগঞ্জ বাজারের কলোনিতে গিয়ে আনোয়ার মিয়ার মেয়ের খোঁজ করে। মেয়েকে না পেয়ে আনোয়ার মিয়াকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে যায় এবং তার বাড়িতে নিয়ে লোহার রড দিয়ে পিটায়। এর আগে স্বামী পরিত্যক্তা ওই নারীকে একদিন জোর করে উঠিয়ে নিয়ে ধর্ষণ করে শামীম আহমদ। সোমবার রাতের ঘটনায় খবর পেয়ে পুলিশ আহত বৃদ্ধ আনোয়ার মিয়াকে উদ্ধার করে এবং চারজনকে আটক করে। এবং মঙ্গলবার সকালে স্বামী পরিত্যক্তাকে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ সদর এলাকা থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।