যাদুকাটার সেতুই হবে আমাদের হাওরাঞ্চলের পদ্মাসেতু-এমপি রতন


স্টাফ রিপোর্টার::
সুনামগঞ্জ -১ আসনের সাংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন বলেছেন, পদ্মাসেতু নির্মাণ কাজ যেমন অবিশ্বাস্য ছিল, ঠিক তেমন সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে যাদুকাটা নদীর উপর ৭০০ মিটার সেতু নির্মাণের কাজটাও এখানকার স্থানীয় নেতাকর্মী সহ অনেকেই অবিশ্বাস্য কাজ মনে করত। আজকে সুনামগঞ্জ থেকে আসার পথে যাদুকাটা নদীর উপর নির্মিত প্রায় ২৫০ মিটার সেতুর উপর হাটার পর অনেকটা আনন্দ পেয়েছি। যাদুকাটা নদীর উপর নির্মিত এই সেতুটি হবে আমাদের হাওরাঞ্চলের পদ্মাসেতু। এই সেতু বাস্তবায়নের মধ্য দিয়েই হাওরাঞ্চলের মানুষের স্বপ্ন পুরন হবে। আশা করছি খুব শীগ্রই সেতু নির্মাণের কাজ শেষ হলে শুভ উদ্বোধন করা হবে। মঙ্গলবার বেলা ২টায় মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজরিত তাহিরপুর উপজেলার শহীদ সিরাজ লেকে কয়লা আমদানিকারক গ্রুপের বার্ষিক সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন এমপি রতন। তিনি বলেন, তাহিরপুর উপজেলার সীমান্ত এলাকা ট্যাকেরঘাটে ২০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গবন্ধু শ্রমিক জনতা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কাজও খুব শীগ্রই শুরু করা হবে। এখানে সীমান্তের সকল শ্রমিক জনতা স্বাস্থ্য সেবা পাবে। তাহরিপুর কয়লা আমদানকিারক গ্রুপরে সভাপতি হাজী মোঃ আলখাছ উদ্দিন খন্দকার এর সভাপতিত্বে ও গ্রুপের আন্তর্জাতকি বিষয়ক স¤পাদক আবুল খয়ের এর সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্যে রাখনে তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগরে সাধারন স¤পাদক অমল কান্তি কর, জলো এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুব আলম। এসময় সভায় আরও উপস্থতিি ছলেন তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগরে সাবেক সভাপতি আব্দুস সোবহান আখঞ্জী, উপজলো আওয়ামলিীগরে সহ সভাপতি হাজী জালাল উদ্দিন, কয়লা আমদানীকারক গ্রুপের সাধারণ স¤পাদক মাশোরফ হোসেন, তাহরিপুর উপজলো পরষিদ ভাইস চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন খন্দকার লিটন, উপজেলা আওয়ামীলীগরে যুগ্ম সাধারণ স¤পাদক শফিকুল ইসলাম, তাহিরপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ আব্দুল লতিফ তরফদার, আওয়ামীলীগ নেতা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দনি, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আমির উদ্দিন, উপজেলা পরিষদ মহলিা ভাইস চেয়ারম্যান খালেদা বেগম প্রমুখ।