মধ্যনগরে বোরো ফসলের চাষাবাদ শুরু


স্টাফ রিপোর্টার::
মধ্যনগর থানার হাওরে এক ফসলি ধানী জমিগুলোতে বোরো ফসলের আবাদ শুরু হয়েছে। জানা যায়, এই বছর মধ্যনগর থানার চারটি ইউনিয়নে ১৫ হাজার ২শত হেক্টর জমিতে বোরো ফসলের আবাদ শুরু করা হচ্ছে। এই পর্যন্ত ৭শত হেক্টর জমিতে ধানের চারা রোপণ করা হয়েছে। আগামী ১৫-২০ দিনের মধ্যে শতভাগ জমিতে বোরো ফসলের রোপণ শেষ হবে। বংশীকুন্ডা (দঃ) ইউনিয়নের দক্ষিণ উড়া গ্রামের কৃষক বিপ্লব বিশ্বাস বলেন,এবছর আমি ৩ একর জমিতে বোরো ফসলের আবাদ করার জন্য হালচাষ করে প্রস্তুত করছি। বীজতলা থেকে ধানের চারা উত্তোলন করে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে রোপণের চেষ্টা করছি। মধ্যনগর বাজারের বাসিন্দা আলাউদ্দিন বলেন, বোয়ালা ও শালদীঘা হাওরে আমার সাড়ে তিন একর জমিতে বোরো ফসলের আবাদ আগামী সপ্তাহ থেকে শুরু করব। ধীরে ধীরে হাওরের পানি কমে নিচের জমি গুলো ভেসে উঠার কারনে হাওরে কৃষি শ্রমিক সংকট নেই। কিছুদিনের মধ্যে বোরো ফসলের আবাদ পুরোদমে শুরু হবে। টাংগুয়ার হাওরের পশ্চিমপাড়ের রংচী গ্রামের কৃষক মোঃ আব্দুল হেলিম বলেন, আমাদের টাংগুয়ার হাওরপাড়ের উঁচু জমিগুলোতে বোরো ফসলের চাষাবাদ শুরু হয়ে গেছে। আগামী সপ্তাহের মধ্যে নিচের জমি গুলোতে ও চাষাবাদ শুরু হবে। হাওর কবি ও কলামিস্ট জীবন কৃষ্ণ সরকার বলেন, এবারের বন্যার পানি দেরিতে জমি থেকে নামায় কৃষকরা খুব শংকায় ছিল, যা হোক বোরো ফসল আবাদ শুরু হওয়া নিঃসন্দেহে এই এলাকার জন্য এক আশার কথা। কারন হাওর এলাকার অধিকাংশ মানুষের জীবন জীবিকা এই বোরো ফসলের উপর নির্ভরশীল। ফসল আবাদে কোন সমস্যা হচ্ছে কিনা তা সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের সার্বিক তদারকি কামনা করি। এই বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ নাজমুল ইসলাম বলেন, হাওরের পানি কমে ফসলি জমি গুলো ভেসে উঠার কারনে বিভিন্ন জায়গা পুরোদমে বোরো ফসলের আবাদ শুরু করা হয়েছে। পুরো উপজেলায় আজ পর্যন্ত ৪২ হেক্টও জমিতে বোরো ফসলের ধানের চারা রোপণ করা হয়েছে।